Breaking News
Home / সারাদেশ / খালি হাতে বিদেশ ফেরত যুবকদের স্বপ্ন দেখাচ্ছে ব্র্যাকের মাইগ্রেশন কর্মসূচি

খালি হাতে বিদেশ ফেরত যুবকদের স্বপ্ন দেখাচ্ছে ব্র্যাকের মাইগ্রেশন কর্মসূচি

দালালদের খপ্পরে পরে বিদেশ গিয়ে সর্বশান্ত হয়ে খালি হাতে দেশে ফেরা যুবকদের স্বপ্ন দেখাচ্ছে ব্র্যাকের মাইগ্রেশন কর্মসূচি। এই কর্মসূচির আওতায় বরিশালের আগৈলঝাড়ায় স্বাবলম্বী হতে ব্র্যাকের সহায়তা পেল ওমান ও সিঙ্গাপুর ফেরত বেকার দুই যুবক।

ওই দুই যুবককে গবাদী পশু পালন ও মৎস্য চাষের মাধ্যমে স্বাবলম্বী হতে তাদের গবাদী পশু ও মাছের পোনা এবং তা প্রতিপালনের জন্য বিন্যামূল্যে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

ভাগ্যের চাকা ঘুরাতে বিদেশ গিয়ে অনাকাঙ্খিতভাবে বিদেশ ফেরত ওই দুই যুবককে বৃহস্পতিবার সকালে ব্র্যাকের মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের আওতায় বিনামূল্যে গবাদী পশু, মাছের পোনা ও তা প্রতিপালনের জন্য খাদ্য সহায়তা প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ব্র্যাকের বরিশাল আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক (দাবী-১) মো. সাইফু ইসলাম ও ব্র্যাকের বরিশাল আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক (দাবী-২) পাপড়ী বাড়ৈ।

এ সময় আগৈলঝাড়া ব্র্যাকের ব্রাঞ্চ ম্যানেজার (দাবি) মো. শাহাদাৎ হোসেন খান, বিএন (এসসিডিপি) ম্যানেজার শান্ত কুমার ঘোষ, মাইগ্রেশন প্রোগ্রাম অর্গানাইজার মো. দেলোয়ার হোসেন বাপ্পি, হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তাসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র মতে, উপজেলা রাজিহার গ্রামের সোনামদ্দিন ফকিরের ছেলে ওমান ফেরত সুরুজ ফকিরকে মৎস্য ঘের চাষের জন্য ৬৫হাজার টাকার মাছের পোনা ও ১৬ হাজার টাকার মাছের খাবার বিতরণ করা হয়েছে।
সুরুজ জানায়, এক বুক স্বপ্ন নিয়ে ধার দেনা করে ২০২৩ সালে সাড়ে তিন লাখ দিয়ে ওমান যায় সে।

সেখানে গিয়ে দালাল তাকে কোন কাজ দেয়নি। খেয়ে না খেয়ে আড়াই মাস দুঃসহ জীবন যন্ত্রনা ভোগ করে দেশ থেকে টাকা পাঠিয়ে বিমানের টিকেট কিনে দেশে ফিরতে হয়েছে তাকে। বর্তমানে নিঃস্ব সুরুজ ব্র্যাকের সহায়তায় আবার ঘুরে দাড়ানোর স্বপ্ন দেখছে।

অপর সুবিধাভোগী বাশাইল গ্রামের লালচান বেপারীর ছেলে মিলন বেপারী জানায়- সাড়ে ৮লাখ টাকা খরচ করে স্বপ্নের শহর সিঙ্গাপুর যায় সে। ২৪ দিন সিঙ্গাপুর ছিল। এই সময়ের মধ্যে দালাল তাকে কোন কাজ না দিয়ে ফেলে রেখে চলে যায়। অন্যর সহায়তায় এক বছর আগে খালি হাতে দেশে ফেরে সর্বশান্ত মিলন।

বৃহস্পতিবার ব্র্যাকের মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের আওতায় ৬৫হাজার টাকা মূল্যের গবাদী পশু ও তা প্রতিপালনের জন্য ১২ হাজার টাকার খাদ্য সহায়তা পেয়েছে সে। এর মাধ্যমে নতুন করে ঘুরে দাড়িয়ে বাচার স্বপ্ন দেখছে মিলন।

ব্র্যাকের বরিশাল আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক মো. সাইফুল ইসলাম ও পাপড়ী বাড়ৈ জানান, বিদেশগামী সকলকে ব্র্যাকের মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের আওতায় তাদের ভিসা চেক করে কোম্পানীর কাজের নিশ্চয়তা জেনে বিদেশ যাবাবার আহ্বান জানিয়ে আরও বলেন-

বিদেশ ফেরত যুবকদের জন্য এই কর্মসূচির আওতায় তাদের স্বাবলম্বী করতে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে তাদের স্বাবলম্বী করতে সহায়তা করা হচ্ছে। সহায়তা প্রাপ্ত এই সকল যুবকদের ফলো আপও করবে ব্র্যাক।

About admin

Check Also

আগৈলঝাড়ায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহন, চলছে ভোট গননা

আইন শৃংখলা বাহিনীর কঠোর নিরাপত্তায় ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে বরিশালের আগৈলঝাড়ায় ভোটার উপস্থিতি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *