Breaking News
Home / সারাদেশ / সুখী’র ডাক্তার হবার স্বপ্ন অন্ধকারে

সুখী’র ডাক্তার হবার স্বপ্ন অন্ধকারে

অদম্য ইচ্ছাশক্তির কাছে দারিদ্রতাও যে বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনা তা প্রমাণ করে দিয়েছে সাম্মি সুলতানা সুখী। পরিবারের চরম অভাব অনটনের মধ্যদিয়ে নিজের ইচ্ছা শক্তিকে কাজে লাগিয়ে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে সুখী।

ভাল ফলাফল করা সত্বেও সুখীকে সুখের কোন খবর দিতে পারেনি তার পরিবারের সদস্যরা। অর্থাভাবে কলেজে ভর্তি হয়ে উচ্চ শিক্ষা নিয়ে সাম্মি সুলতানা সুখীর ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন এখন অনিশ্চিত হয়ে পরেছে।

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার রাজিহার ইউনিয়নের রাংতা মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ-৫ পাওয়া মেধাবী ছাত্রী সাম্মি সুলতানা সুখী রাংতা গ্রামের সেলিম হাওলাদার ও রাশিদা বেগম দম্পতির মেয়ে।

সুখীর বাবা রাংতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর একজন কর্মচারি। বর্তমান দ্রব্যমূল্যের বাজারে চার সদস্যর সংসারে প্রতিনিয়ত তাকে চরম আর্থিক দৈন্যতা পরতে হচ্ছে।

তার বড় ছেলে সিফাত হাওলাদার বরিশাল পলিটেকনিক্যাল কলেজে পড়াশুনা করছে। অভাবের কারণে তার পড়াশোনাও বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সাম্মি সুলতানা সুখী জানিয়েছে, তার দরিদ্র পিতার পক্ষে লেখাপড়া চালানো সম্ভব ছিলোনা। তাই বাবার ওপর চাঁপ কমাতে এলাকার ছোট ছোট শিার্থীদের প্রাইভেট পড়িয়ে সে নিজের পড়াশোনার খরচ জুগিয়েছে। স্বপ্ন ছিলো উচ্চ শিক্ষা লাভ করে ভবিষ্যতে একজন ডাক্তার হওয়ার। কিন্তু দরিদ্রতার কারনে এখন কলেজে ভর্তি হওয়ায়ই অনিশ্চিত হয়ে পরেছে।

সেলিম হাওলাদার বলেন, আমি বর্তমানে শারিরিকভাবে খুই অসুস্থ। আমার চিকিৎসা, বড় ছেলের পড়াশুনার খরচ ও চার সদস্যর সংসার আমার সামান্য আয় দিয়ে চলানো খুব কষ্টকর। এ অবস্থায় ছেলে ও মেয়ের পড়াশুনা বন্ধ করে দেওয়া ছাড়া আমার আর কোন উপায় নেই।

About admin

Check Also

আগৈলঝাড়ায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহন, চলছে ভোট গননা

আইন শৃংখলা বাহিনীর কঠোর নিরাপত্তায় ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে বরিশালের আগৈলঝাড়ায় ভোটার উপস্থিতি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *