Home / সারাদেশ / ডলার ভর্তি লাগেজ আনতে খোয়া গেল ৭৮ লাখ টাকা প্রতারক চক্রের এক সদস্য গ্রেপ্তার

ডলার ভর্তি লাগেজ আনতে খোয়া গেল ৭৮ লাখ টাকা প্রতারক চক্রের এক সদস্য গ্রেপ্তার

এলিজাবেদ এরিসের পাঠানো ডলার ভর্তি লাগেজ আনতে গিয়ে প্রায় ৭৮ লাখ টাকা খুইয়েছেন। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের ছয়মাস পর পুলিশ ৩৫টি ব্যাংকের ৮৬টি ডিজিটাল ব্যাংক (এটিএম) কার্ড, বিভিন্ন ব্যাংকের ১৫১টি চেকের পাতা, পাঁচটি মোবাইল সেট ও আটটি সিমসহ প্রতারক চক্রের এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে। ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্যদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশের অভিযান চলছে।

রবিবার বেলা ১১ টায় মেট্রোপলিটন পুলিশের সদরদপ্তরের সম্মেলন কে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করে উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) মোঃ আলী আশরাফ ভূঞা বিপিএম বার জানিয়েছেন, গ্রেপ্তারকৃত সোহাগ শেখ (২৪) শরিয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার কেদারপুর ইউনিয়নের পাঁচগাও গ্রামের জব্বার শেখের ছেলে।

গ্রেপ্তারকৃতর দেওয়া তথ্যের বরাতে উপ-কমিশনার জানান, সোহাগ শেখ প্রতারক চক্রের প্রথম স্তরের প্রথম ম্যান। এখানে কমপে আরও ৪/৫টি ধাপে ১০/১২ জন সদস্য রয়েছে। যারমধ্যে দেশের বাহিরে বিদেশেও একটি স্তর রয়েছে। যারা প্রতিটি স্তরে প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে মানুষের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

উপ-কমিশনার বলেন, মামলার বাদী বরিশাল নগরীর বাসিন্দা রত্নেশ্বর মাঝি (৬৫) একজন বেসরকারি অবসরপ্রাপ্ত চাকরিজীবী। গত বছরের ১৯ নভেম্বর তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরে খায়রুন নেছা নামের একজন ফোন দিয়ে চট্টগ্রাম বিমানবন্দরের সিভিল এভিয়েশন কাস্টমস অফিসার হিসেবে নিজেকে পরিচয় দেয়। এরপর সে রত্নেশ্বর মাঝিকে জানায়, তার নামে এলিজাবেদ এরিস নামের একজন একটি লাগেজ পাঠিয়েছেন।

যারমধ্যে বিপুল পরিমাণ ডলার রয়েছে। এরপর খায়রুন নেছা নামের ওই নারী বাদীকে বিভিন্নভাবে লোভে বশীভূত করেন এবং ডলারগুলো কাস্টমস থেকে ছাড়ানোর জন্য পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন পরিমাণের টাকা দাবি করেন।

পরবর্তীতে বাদী মাত্র ২৩ দিনের মধ্যে বিভিন্ন ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে ও বিভিন্ন বিকাশ নম্বরে সর্বমোট ৭৭ লাখ ৯০ হাজার টাকা প্রেরণ করেন। এরপরেও লাগেজ ছাড়াতে আরো টাকা লাগবে জানালে বাদী বুঝতে পারেন যে তিনি প্রতারণার ফাঁদে পড়েছেন। তখন বাদী কোতয়ালি মডেল থানায় গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর একটি মামলা দায়ের করেন।

থানার এসআই রেজাউল ইসলাম মামলার তদন্তের একপর্যায়ে সাইবার টিমের সহায়তায় ঢাকার মতিঝিল এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন।

অভিযানে সোহাগ শেখকে প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত ৩৫টি ব্যাংকের ৮৬টি ডিজিটাল ব্যাংক (এটিএম) কার্ড, বিভিন্ন ব্যাংকের ১৫১টি চেকের পাতা, পাঁচটি মোবাইল সেট ও আটটি সিমসহ গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃর বিরুদ্ধে ঢাকার খিলগাও থানাসহ একাধিক থানায় অসংখ্য মামলা রয়েছে

About admin

Check Also

আগৈলঝাড়ায় বর্নাঢ্য আয়োজনে রথযাত্রা উৎসব পালিত

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় ব্যাপক উৎসাহ, উদ্দীপনা আর ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যর মধ্য দিয়ে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *