Breaking News
Home / সারাদেশ / আগৈলঝাড়ায় প্রতিপক্ষের হা’মলায় মুক্তিযো’দ্ধার স্ত্রী আ’হত

আগৈলঝাড়ায় প্রতিপক্ষের হা’মলায় মুক্তিযো’দ্ধার স্ত্রী আ’হত

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় প্রতিপক্ষের হাম’লায় মুক্তিযো’দ্ধার স্ত্রী আ’হতর ঘটনায় থানায় অভি’যোগ দায়ের করে বাড়ি ফেরার পথে হা’মলাকারীদের পথরোধ। উল্টো মা’মলা করেছে হা’মলাকারীরা। উপজেলার রাজিহার ইউনিয়নের ভালুকশী গ্রামের মক্তিযো’দ্ধা ম’রহুম কাজী আবুল বাশারের স্ত্রী মমতাজ বেগম (৬৫) অভি’যোগে বলেন, পূর্ব বিরোধের জের ধরে বৃহস্পতিবার বিকেলে একই এলাকার সৈয়দ আলী ফকিরের ছেলে রকিব ফকির, এনায়েত কাজীর ছেলে আল ইমলাম ও আকতার হোসেনের ছেলে সুরুজ কাজী তার বাড়ির সামনে বসে তাদের অকথ্য ভাষায় গা’লাগাল শুরু করে।

এসময় তার ছেলে মামুন কাজী ও দেবর সোহাগ কাজী ঘটনার প্রতিবাদ করায় প্রতিপক্ষের লোকজন মমতাজ বেগমকে ধাক্কা মেরে ফেলে দিলে ইটের আ’ঘাতে তার কপাল ফেটে যায়। এসময় তার ছেলে ও দেবরের সাথে হাতাহাতির এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষ রকিবকেও তারা ধাক্কা মা’রলে সেও মাটিতে পরে ইটের আ’ঘাতে তারও কপাল কেটে যায়। আ’হত রকিব হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

রাজিহার গ্রামের মৃ’ত মোকলেচ ছকিরের ছেলে মনির ফকির মমতাজ বেগমকে ধাওয়া করার সত্যতা স্বীকার করে জানায়, তারা ঘটনাস্থলে ছিল বলেই তাদের উপর কোন হা’মলা করতে পারেনি তাদের প্রতিপক্ষের লোকজন। মমতাজ বেগম আরও জানান, তার উপর হাম’লার ঘটনায় ওই দিন সন্ধ্যার পরে থানায় এসআই মনিরুজ্জামারে কাছে লিখিত অভি’যোগ দায়ের করে তারা ইজি বাইকে বাড়ি ফেরার পথে প্রতিপক্ষের লোকজন মোটরসাইকেলে তাদের ধাওয়া করলে তারা রাজিহার ষ্ট্যান্ডে আ’শ্রয় নেয়।

শুক্রবার সকালে এসআই মনিরুজ্জানের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাবার কথা থাকলেও সকালে এসআই সুশান্ত কুমার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এসআই সুশান্ত কুমারের কাছ থেকে তিনি জানতে পেরেছেন যে রকিব ফকির বাদী হয়ে তার ছেলে, দেবরসহ ৪ জনকে আ’সামী করে উল্টো তাদের নামে মা’মলা করেছেন।

বৃহস্পতিবার থানার ডিউটি অফিসার এসআই মনিরুজ্জামান মমতাজ বেগমের লিখিত অভি’যোগ প্রাপ্তির সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে অভি’যোগ পেয়ে শুক্রবার সকালে তার ঘটনাস্থলে যাবার কথা ছিল। কিন্তু অপর পক্ষের দায়ের করা মা’মলা এসআই সুশান্ত কুমার তদন্ত কর্মকর্তা হওয়ায় তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এসআই সুশান্ত কুমার জানান, বৃহস্পতিবার রাতে ৪জনকে আ’সামী করে রকিব ফকির মা’মলা দায়ের করেছেন, নং-৪। ওই মাম’লায় তিনি শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনাস্থলে গিয়ে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পেয়েছেন। এসআই মনিরুজ্জামানের কাছে মমতাজ বেগমের লিখিত অভি’যোগের বিষয় তিনি অবগত নন। তার পরেও ওই অভি’যোগসহ মা’মলার বিষয়টি তদ’ন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানান তিনি।

থানা অফিসারসার ইন চার্জ মো. আফজাল হোসেন মা’মলা দায়েরের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মমতাজ বেগমের অভিযো’গের বিষয়ে তিনি অবগত নয়। এসআই মনিরুজ্জামানের কাছে মমতাজ বেগমরে অভি’যোগ বিষয়ে তাকে অবহিত করলে তিনি আরও বলেন, তাহলে অভি’যোগের বিষয়ে এসআই মনিরুজ্জানই ব্যবস্থা নেবেন।

Check Also

বিভাগের সবচেয়ে বেশী পুজা অনুষ্ঠিত আগৈলঝাড়ায়,পুজা মন্ডপ পরিদর্শণে বরিশাল বিভাগীয় কমশিনার

আগৈলঝাড়া উপজেলায় ১শ ৬০টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গা পুজার মধ্যদিয়ে বরিশাল বিভাগের সবচেয়ে বেশী দুর্গা পুজা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *