Home / অন্যান্য / মাশরাফির বিদায়ের দীর্ঘ দিন পর মুখ খুললেন পাপন

মাশরাফির বিদায়ের দীর্ঘ দিন পর মুখ খুললেন পাপন

বাংলাদেশ ক্রিকেটে মাশরাফির অবদান কোনভাবেই খাটো করার কোন উপায় নেই, মাশরাফির বিদায়ের দীর্ঘ দিন পর মুখ খুললেন পাপন

গেলো বছর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডের আগে মূল আলোচ্য বিষয় ছিল মাশরাফির সংবাদ সম্মেলন। সেসময়ে খানিকটা ক্ষেপেই গিয়েছিলেন তিনি। তখন সেই ইস্যুতে কথা বলেছেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপনও।

যখন দুই দলের ওয়ানডে ম্যাচ নিয়ে যেখানে বেশি আলোচনা হওয়ার কথা ছিল সেখানে সংবাদ সম্মেলনে উত্তাপ ছড়িয়েছে মাশরফির এক বক্তব্য। বিশ্বকাপে বাজে পারফরম্যান্স এবং অবসর- সবমিলিয়ে সময়টা ভালো যাচ্ছিল না মাশরাফির।

বিশ্বকাপের পর সেসময়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মাশরাফি। আর প্রথম সংবাদ সম্মেলনেই যত কান্ড ঘটেছিল।

বিগত সময়ের পারফরম্যান্স নিয়ে এক সাংবাদিক মাশরাফির দিকে প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছিলেন। তবে পুরো প্রশ্নের চেয়ে আত্মসম্মানের বিষয়টি বেশি গায়ে লেগেছে মাশরাফির।

ওই প্রশ্নের জবাবে মাশরাফি জানিয়েছিলেন, ‘আমি কী চোর যে আত্মসম্মানে লাগবে’। বিষয়টি ভালো লাগেনি বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসানেরও। তাই তো ম্যাচের ফাঁকে সংবাদ সম্মেলনে এই ইস্যুতে কথা বলেছেন তিনি।

“আমি সবসময় দুটো ক্রিকেটারের কথা বেশি বলি কিন্তু। এক- ক্রিকেটার সাকিবের কোন রিপ্লেসমেন্ট নেই আমাদের হাতে, দুই- ‘অধিনায়ক’ মাশরাফির রিপ্লেসমেন্ট নেই কোন। বাংলাদেশ ক্রিকেটে মাশরাফির অবদান কোনভাবেই খাটো করার কোন উপায় নেই।

আপনারা একটা জিনিস হয়ত খেয়াল করেছেন, মাশরাফিকে সবচেয়ে বেশি সুযোগ দেওয়ার যে চেষ্টা আমরা করছি অন্যদের বেলায় তা করেনি।”

তিনি আরও যোগ করেন, “একটা উদাহরণ দিই, আমরা যখন মুশফিককে বাদ দিয়ে মাশরাফিকে অধিনায়কত্ব দিই, তখন কিন্তু আমরা কাউকে জিজ্ঞাসা করে দিই নি।

মাশরাফির ব্যাপারটা ভিন্ন। ওর পুরো সংবাদ সম্মেলনটা দেখে আমার মনে হয়েছে, আপনারা ওকে একটু বেশিই খোঁচাচ্ছিলেন।

এইরকম একটা সময় আপনাদের আরও ওর পাশে দাঁড়ানোর দরকার, সেখানে তাকে মনে হয় কষ্টটা একটু বেশিই দিয়ে ফেলছেন।”

Check Also

মাশরাফিকে ছাড়িয়ে শীর্ষে উঠে সাকিবের ইতিহাস

মাশরাফিকে ছাড়িয়ে শীর্ষে উঠে সাকিবের ইতিহাস দারুন মারমুখী জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলর সুইপ করতে গিয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *