Breaking News
Home / জাতীয় / দেশের আকাশে সূর্যকে ঘিরে সৃষ্টি হওয়া বলয় নিয়ে কৌতুহল

দেশের আকাশে সূর্যকে ঘিরে সৃষ্টি হওয়া বলয় নিয়ে কৌতুহল

বরিশালের আগৈলঝাড়া ও গৌরনদী উপজেলাসহ বরিশালের আকাশে সূর্যকে ঘিরে একটি বলয় দেখা গেছে। যা দেখতে অনেকটা রংধনুর মতো ছিলো। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার পর উপজেলাসহ বরিশালের আকাশে দেখা যায় এই বিরল দৃশ্য। অবশ্য ধীরে ধীরে প্রায় আধা ঘন্টা পর পৌঁনে ১টার দিকে সূর্যের নীচের স্থরের বলয় বিলীন হয়ে যায়। এই দৃশ্য উপভোগ করেন হাজার হাজার মানুষ। মুহূর্তে চাউর হয়ে যায় সূর্য ঘিরে বলয় সৃষ্টির। করোনা আতংকের মধ্যে সূর্য্যরে এই বিশেষ বলয় ঘিরে ভীত সন্ত্রস্ত্র হয়ে পড়েন দক্ষিণের মানুষ। এই সময় তারা সৃষ্টি কর্তাকে স্মরণ করেন বার বার। তবে এটা বিরল ঘটনা নয়, প্রকৃতিতে এমন ঘটনা প্রায়ই ঘটে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

গতকাল বেলা ১২টার দিকে আকাশে সূর্য ছিলো মাঝ আকাশে। ছিলো প্রখর রোদ। সোয়া ১২টার দিকে ধীরে ধীরে সূর্য ঘিরে একটি গোলাকার বলয় সৃষ্টি হয়। দেখতে অনেকটা মেঘাচ্ছন্ন বৃত্তের চারপাশে এবং মাঝ বরাবর সূর্য্যরে রশ্মি। এ সময় রোদের তেজ কমে যায়। আলো একটা ছায়ার মতো পড়লেও ছিলো সূর্য্যরে আলো। দেখতে অনেকটা রংধনুর মতো এই বলয় ঘিরে মানুষের মাঝে সৃষ্টি হয় কৌতুহলের। তারা মুহূর্তের মধ্যে স্বজন, বন্ধু-বান্ধবের কাছে ছড়িয়ে দেয় এই খবর। মানুষজন আগ্রহ নিয়ে দেখেন থাকেন সূর্য ঘিরে গোলাকার বলয়। অনেকে এই দৃশ্য মুঠোফোনে ভিডিও এবং স্থির চিত্র ধারন করেন।

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মো. খোরশেদ আলম সাংবাদিকদের বলেন, এটা বিরল কোন ঘটনা নয়। মাঝে মধ্যেই হয়ে থাকে। অনেক বাঁধা বিপত্তি অতিক্রম করে সূর্য্যরে আলোক রশ্মি ভূ-পৃষ্ঠে আসে। ওটা সূর্যের নীচ দিয়ে একটি মেঘের খন্ড। অন্যান্য সময় মেঘের খন্ড বিভিন্ন আকারের হলেও এবার দেখা গেছে গোলাকার মেঘ খন্ড। মেঘের কাস্টার ভেদ করে সূর্যের আলোক রশ্মি ভূ-পৃষ্ঠে আসায় এমন দৃশ্যের অবতারনা হয়েছে। মেঘের খন্ডগুলো বিন্যাসের কারণে ভূ-পৃষ্ঠ থেকে একটা শেফ দেখা গেছে। কিছুক্ষন পর আবার এই দৃশ্য অটোমেটিক চেঞ্জ হয়ে গেছে।

Check Also

দেশে করোনা আক্রান্ত ৩জনের ১জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে

দেশে করোনা আক্রান্ত ৩রোগীর মধ্যে ১জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে। ১৩মার্চ সকালে রাজধানীর মহাখালীতে সংবাদ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *